Photo Editing app

Mobile Photography Apps – মোবাইল ফটোগ্রাফি অ্যাপ Leave a comment

Mobile Photography Apps স্মার্টফোনের কল্যাণে শৌখিন ফটোগ্রাফদের সংখ্যা প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। এক সময়ে ডিজিটাল ক্যামেরা না হলে ভালো ফটো তোলা যেত না। তবে এখন এমন ধারণার ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে স্মার্টফোনগুলোতে থাকা উন্নতমানের ক্যামেরার কারণে। স্মার্টফোনে উন্নতমানের ক্যামেরা আবির্ভাবের পর থেকেই হাতের কাছে থাকা SmartPhone দিয়েই আশেপাশের যেকোন মুহূর্তের ছবি তুলে অনায়াসে শেয়ার করা যাচ্ছে সোশ্যাল মাধ্যম গুলোতে। তবে ফটো তুলে এডিট না করে শেয়ার করেন এমন ব্যাক্তি এখন খুঁজে পাওয়া খুবই দুঃষ্কর। তাই নিম্নে অ্যান্ড্রয়েডের কয়েকটি জনপ্রিয় ফটো এডিটিং অ্যাপ সম্পর্কে আলোচনা করা হলো।

 

StoryZ Photo Motion & Cinemagraph (Unreleased)

এই অ্যাপস এর মাধ্যমে আপনি আপনার স্টিল পিক থেকে static image এবং overlay ভিডিও সমন্বয় করে অ্যানিমেটেড ডাবল এক্সপোজার effect তৈরি করতে পারবেন। এর ব্যবহারবিধি অত্যন্ত সহজ।


Play Store Downloads Link
Play Store Downloads Link
StoryZ Photo Motion & Cinemagraph (Unreleased)
StoryZ Photo Motion & Cinemagraph (Unreleased)

 

বিগিনার এবং এক্সপার্ট ইউজারেদের জন্য সমানভাবে উপযুক্ত। এর মাধ্যমে আপনি visual effects যেমন cinemagraph, double exposed gifs অথবা magical moving portraits তৈরী করতে পারবেন।
Ripple:

রিপল দ্বারা আপনি আপনার still image কে অ্যানিমেটেড ফটোগ্রাফ বা ডিজিটাল আর্ট তৈরি করতে পারবেন।

Ripple stories কিভাবে তৈরি করবেন:

১) একটি ছবি এবং আপনার পছন্দসই আকার নির্বাচন করুন।
২) Motion point: আপনার ছবির একটি অংশে motion points/arrows এর মাধ্যমে চিহ্নিত করুন। motion points/arrows গতির দিক নির্ধারণ করে।
৩) Motion series: এটি আপনার ছবির একটি অংশে ক্রমাগত motion effect দেওয়ার একটি ধারা।
৪) Stabilization points: motion points/series এর প্রভাব সীমাবদ্ধ করে আপনার ছবির একটি অংশকে আটকে রাখার জন্য Stabilization point যুক্ত করুন।
৫) Stabilization series: এটি stabilization point এর একটি ধারা।
৬) মুছে ফেলার জন্য ডায়নামিক বা স্টেবিলাইজেশন পয়েন্ট / সিরিজ জুড়ে আপনার আঙুলটি swipe করুন।
৭) Mask: আপনি ছবিটি যেখানে সরাতে চান না সেখানে মাস্ক ব্যবহার করুন। Manual brush দ্বারা এটি ইউজ করতে পারেন।
৮) আপনার ছবি StoryZ দেখতে প্লে করুন।
Motion:

আশ্চর্যজনক অ্যানিমেশন effect পেতে ভিডিও সহ ছবি মিক্সড করতে পারবেন। এখন ছবিতে overlay ভিডিও মিক্সড করে আপনার ভিডিও story তৈরি করুন।



Motion কিভাবে তৈরি করবেন:

১) একটি ছবি এবং আপনার পছন্দসই আকার নির্বাচন করুন।
২) আপনার গ্যালারি বা Pixabay ভিডিও সার্চ থেকে কোন ভিডিও নির্বাচন করুন।
৩) আপনার motion effect এর জন্য প্রয়োজনীয় পছন্দসই দৈর্ঘ্য ভিডিও কেটে নিন।
৪) ছবি সহ ভিডিও মিক্সড করতে magic বা Manual brush ব্যবহার করুন।
৫) আপনার ছবি StoryZ দেখতে প্লে করুন।

Sweet Selfie – selfie cam, beauty cam, photo edit

Sweet Selfie - selfie cam, beauty cam, photo edit
Sweet Selfie – selfie cam, beauty cam, photo edit
Sweet Selfie - selfie cam, beauty cam, photo edit
Sweet Selfie – selfie cam, beauty cam, photo edit

জনপ্রিয় ফটো এডিটর অ্যাপসগুলোর মধ্যে একটি। এই অ্যাপ্লিকেশনটি আপনার সমস্ত ডিভাইসে ব্যবহার করা যেতে পারে। আপনি এর মাধ্যমে সরাসরি সেলফি তুলতে পারবেন যার ছবির কালারগুলো অনেক উজ্জ্বল এবং শার্প হবে। এছাড়া এতে অনেক ট্রেন্ডি ফিল্টার সংযোজন করা আছে, যা ব্যবহার করে ছবির রঙের গঠন পরিবর্তন করতে পারবেন। অ্যাপ্লিকেশনের ভিতরে, বিভিন্ন থিম রয়েছে যা আপনি ব্যবহার করতে পারেন। এই অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে আসলে বেশ সহজ।  এই অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করার জন্য অবশ্যই আপনাকে অবশ্যই Google Play  থেকে এটি ইনস্টল করতে হবে। এটির পরে, যখনই আপনি কোনও ছবি উঠাতে চান তখন অ্যাপ্লিকেশনটি খুলুন। ছবি ক্যাপচার বড় বাটন আলতো চাপুন। তারপরে, ক্যাপচার করার পরে, আপনি ফিল্টারগুলি ব্যবহার করে ফটোটি ইডিট করতে এবং সেখানে কিছু স্টিকার যুক্ত করতে পারেন। এছাড়া আপনি এই অ্যাপস ইউজ করে আপনার আপনার হেয়ার স্টাইলও চেঞ্জ করতে পারবেন।

BeautyPlus – Easy Photo Editor & Selfie Camera

BeautyPlus - Easy Photo Editor & Selfie Camera
BeautyPlus – Easy Photo Editor & Selfie Camera
BeautyPlus - Easy Photo Editor & Selfie Camera
BeautyPlus – Easy Photo Editor & Selfie Camera

Sweet selfie এর মতো এটিও একটি ফটো ইডিটর অ্যাপস। BeautyPlus অ্যাপসটি সিম্পল, কিন্তু পাওয়ারফুল ফটো ইডিটিং , artistic effects, augmented reality (AR) filters ইউজ করে আপনার তোলা ছবিটিকে নেক্সট লেভেলে পৌছে দিতে পারেন। BeautyPlus দ্বারা আপনি ব্রণ চিহ্ন, মসৃণ ত্বক, চোখ ও দাঁতের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি, চোখের রঙ ইডিট, ফিল্টার এবং বিশেষ ইফেক্ট যোগ, ছবি ব্লার এবং আরও অনেক কিছু করতে পারবেন।

Skin editor:

# নিখুঁত মুখ এবং selfie ছবির জন্য উজ্জ্বল রঙ যোগ করে
# আমাদের একচেটিয়া ত্বক মসৃণ করতে মেকওভার টুল ব্যবহার করে
# remover option আপনার pimples এবং অন্যান্য ত্বকের সমস্যা শুধু একটি ট্যাপ দ্বারা অদৃশ্য করে দেয়।

Perfect eye:
# আপনার চোখ নিচের গাঢ় বৃত্ত মুছে ফেলতে পারবেন
# চোখের রঙ উজ্জ্বল করতে পারবেন
# custom contacts ব্যবহার করে আপনার চুলের রঙ এবং চোখের রঙ মিল করতে পারেন।
Perfect Smile:

# দাঁত whitening এর সঙ্গে আপনার হাসির প্রাকৃতিক সৌন্দর্য খুঁজে বের করে উপরোক্ত ইফেক্টগুলো ছাড়াও আপনি রিটাচ করতে,

ব্লার ইফেক্ট দিতে অথবা ফিল্টার ইউজ করতে পারবেন। Enlarge, Stretch, Slim এবং Rotate ফিচার ইউজ করে আপনি আপনার ছবিকে প্রফেশনালি কন্ট্রোল করতে পারবেন।

Snapseed

Snapseed
Snapseed
Snapseed
Snapseed

অন্যান্য ফটোইডিট অ্যাপসের মত Snapseed ও ভালো মানের একটি ফটো ইডিটর অ্যাপস। নিম্নে snapseed এর মূল ফিচারগুলো উল্লেখ করা হলোঃ


২৯ টি টুলস এবং ফিল্টার সহ Healing, Brush, Structure, HDR, Perspective ইত্যাদি ফিচার রয়েছেJPG এবং RAW ফাইল খোলে

  • আপনার personal look সেভ করে রাখতে পারবেন এবং পরে নতুন ফটোতে apply করতে পারবেন
  • RAW ফাইল খোলা এবং non-destructively বা JPG হিসাবে সেভ করতে পারবেন
  • exposure এবং colour এডজাস্ট করে আপনার ছবি টিউন করতে পারবেন।
  • ছবির কালার এডজাস্ট করতে পারবেন যাতে করে ছবিটা আরো ন্যাচারাল লাগে
  • ছবির  exposure, saturation, brightness বা warmth রিটাচ করতে পারবেন
  • the renown “Control Point” technology: ইমেজটিতে ৮ পয়েন্ট পর্যন্ত সিলেক্ট করুন এবং উন্নত বৈশিষ্ট্যগুলি সংযোজন করুন, অ্যালগরিদম আপনার বাকি কাজ করে দিবে
  • গ্রুপ ছবি থেকে uninvited যে কাউকে সরাতে পারবেন
  • stylised বা plain টেক্সট যোগ করতে পারবেন
  • আপনার ছবির আকার বাড়াতে পারবেন এবং আপনার ছবির কন্টেন্টগুলো দিয়ে স্মার্ট উপায়ে নতুন স্থানটি পূরণ করতে পারবেন
  • ছবির ব্যাকগ্রাউন্ডে ব্লার ইফেক্ট দিতে পারবেন
  • Glamour glow এডজাস্ট করতে পারবেন
  • Tonal contrast বাড়াতে পারবেন
  • এইচডিআর স্কেপ – একাধিক এক্সপোজারের প্রভাব তৈরি করে আপনার ছবিগুলিতে একটি stunning look আনতে পারবেন
  • ৫০, ৬০ বা ৭০ দশকের ছবির মত স্টাইল করতে পারবেন
  • ডিজিটাল ইমেজ প্রসেসিং দ্বারা মিক্সড মোড থেকে নির্বাচন করে দুটি ফটো মিক্সড করতে পারবেন
  • চোখগুলিতে ফোকাস যোগ, মুখের নির্দিষ্ট আলো যোগ বা চামড়া মসৃণ করতে পারবেন
  • তিনটি ডাইমেনশনাল মডেলের উপর ভিত্তি করে পোর্ট্রেটগুলির পোজ ইডিট করতে পারবেন।
    এছাড়াও Retrolux, Noir, Black & White, Frames ইত্যাদি ফিচার রয়েছে।

 

PicsArt Photo Studio: Collage Maker & Pic Editor

COLLAGE MAKER AND GRIDS:
PicsArt Photo Studio: Collage Maker & Pic Editor
PicsArt Photo Studio: Collage Maker & Pic Editor
PicsArt Photo Studio: Collage Maker & Pic Editor
PicsArt Photo Studio: Collage Maker & Pic Editor

PicsArt এর collage ১০০ টি আছে এবং PicsArt কমিউনিটি প্রতিদিন ১০০০ নতুন ছবি আপলোড করে যা ব্যাকগ্রাউন্ড হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে। PicsArt দ্বারা আপনি grid ছবি collage, templated collage এবং freestyle collage করতে পারবেন।

PHOTO EDIT

১০০০ টি অসাধারন ফিচারের পাশাপাশি আপনি create cutouts, crop, stretch, clone, add text এবং adjust curves করতে পারবেন। এতে আর্টিকিক ফটো ফিল্টারগুলির (HDR সহ) সম্পূর্ণ ফ্রেম রয়েছে, ফ্রেম, ব্যাকগ্রাউন্ড, সীমানা, কলআউট এবং আরও অনেক কিছু। সমস্ত ফিচারগুলি সূক্ষ ভাবে ব্যবহার জন্য brush mode রয়েছে। PicsArt আপনার ছবিতে টেক্সট যুক্ত করতে এবং meme তৈরি করার জন্য 100 টি ফন্ট সরবরাহ করে। এছাড়া ডাবল এক্সপোসার ইউজ করে আপনি ছবি মিক্সড করতে পারেন। PicsArt কমিউনিটি ইতিমধ্যে কয়েক লাখ কাস্টম স্টিকার এবং ক্লিপআর্ট তৈরি করেছে টেক্সট এবং রিমিক্সিং-এ ব্যবহার করার জন্য। PicsArt ক্যামেরা আপনাকে লাইভ ইফেক্টগুলির সাথে ছবিগুলিকে স্ন্যাপ করতে দেয়। আপনি আপনার ক্যামেরা ক্যাপচার থেকেই ছবিগুলো ইডিট করে নিতে পারেন। PicsArt এর ফটোগ্রাফি এবং ইডিটিং চ্যালেঞ্জগুলি নতুন ইডিটিং কৌশলগুলি শিখতে একটি সহজ এবং মজার উপায়। দৈনিক চ্যালেঞ্জ অনুপ্রেরণা খুঁজে পেতে এটি জনপ্রিয় উপায়, যেখানে ব্যবহারকারীরা প্রতিদিন cool photo, collage এবং editing photo গুলো ১০০০ ছবি আপলোড করে।

Photo Editor

ফটো এডিটর একটি ছোট কিন্তু শক্তিশালী ফটো এডিটিং অ্যাপ্লিকেশন। যদি আপনার ফটোগ্রাফির কিছু জ্ঞান থাকে তবে আপনি Photo Editor দিয়ে অনেক কিছু করতে পারেন। এখন আপনার পিসির মতো আপনার মোবাইল ফোনে ছবি সম্পাদনা করতে ফটো এডিটর ব্যবহার করতে পারেন।

Photo Editor
Photo Editor
Photo Editor
Photo Editor
বৈশিষ্ট্যঃ

* Colour : exposure, brightness, contrast, saturation, temperature, tint and hue
* Curves & Levels : fine-tuning of colors
* Effects : gamma correction, auto contrast, auto tone, vibrance, blur, sharpen, oil paint, sketch, black & white high contrast, sepia, and more
* Frame, Denoise, Drawing, Pixel, Clone, Cut Out
* Rotation, Straighten, Crop, Resize
* Corrections : perspective, lens, red-eye, white balance and backlight
* টেক্সট, ছবি বা শেপ সংযোজন
* touch এবং pinch-to-zoom এর সাথে সহজেই ছবি ইডিট করতে পারবেন
* JPEG, PNG, GIF, WebP এবং PDF ফরম্যাটে ছবি সেভ করতে পারবেন
* Metadata (EXIF, IPTC, XMP) দেখা, ইডিট বা ডিলিট করতে পারবেন
* আপনার ছবি Batch, Crop(Puzzle), ZIP, PDF, Animated GIF এ রুপান্তর করতে পারবেন।

Pixlr – Free Photo Editor

Pixlr – Free Photo Editor
Pixlr – Free Photo Editor
Pixlr – Free Photo Editor
Pixlr – Free Photo Editor

Pixlr এমন একটি ফটো ইডিটর যদি আপনি কখনোও ছবি ইডিট না করে থাকেন তবুও পিক্সারে আপনার প্রয়োজনীয় সমস্ত টুলস এবং ইফেক্ট খুজে পাবেন।


Pixlr feature:

# বিভিন্ন প্রকার layout, background এবং spacing চয়েস করে কোলাজ ফটো তৈরী করতে পারবেন।
# অটো ফিক্স সহ এক ক্লিকেই রঙয়ের ব্যালান্স ঠিক করতে পারবেন।
# আপনার ছবিটিতে পেন্সিল, কালি স্কেচ, পোস্টার ইত্যাদি অ্যাড করে স্টাইলিশ করতে পারবেন।
# remove blemishes, red-eyes বা whiten teeth ইত্যাদি ইফেক্ট ইউজ করে আপনার সেলফিটাকে আরো সুন্দর করতে তুলতে পারবেন।
# রঙ স্প্ল্যাশ সহ এক রঙে ফোকাস করুন অথবা ফোকাল ব্লারের ইফেক্ট যুক্ত করতে পারবেন।
# tone বা surreal shades অ্যাড করে আপনার ছবি overlay এর মাধ্যমে ইচ্ছেমত এডজাস্ট করতে পারবেন।
# আপনার ছবিতে ক্যাপশন বা টেক্সট সংযোজন করতে পারবেন।
# পছন্দমত বর্ডার দিয়ে ছবি স্টাইলিশ করতে পারবেন।

 

 Photo Lab Picture Editor: face effects, art frames

Photo lab picture editor একটি স্টাইলিশ ফটো ইডিটিং অ্যাপস। আপনার ছবিতে কোন রকম প্রফেশনাল এডিটর ইউজ না করেও সৃজনশীল রুপ দিতে পারেন।

Photo Lab Picture Editor: face effects, art frames
Photo Lab Picture Editor: face effects, art frames
Photo Lab Picture Editor effects, Halloween makeup
Photo Lab Picture Editor effects, Halloween makeup
প্রধান বৈশিষ্ট্যঃ

☆ Neural Art Styles: ফটো আর্টওয়ার্ক করার জন্য এটি একটি স্মার্ট এবং দ্রুত উপায়। ৫০টি প্রি-সেট স্টাইল থেকে আপনার পছন্দমত বেছে নিয়ে আপনার ছবিতে আর্টওয়ার্ক করতে পারবেন।
☆ Photo frames: আপনার ছবির জন্য একটি সুন্দর ফ্রেম চয়েস করতে পারেন।
☆ Realistic photo effects: আপনার ছবিতে ফটো ইডিটর দ্বারা realistic লুক দিতে পারেন।
☆ Face photo montages: এই ইডিটিং অপশনে আপনি আপনার লুক টাকে জলদস্যু, মহাকাশচারী, ভয়ংকর লুক ইত্যাদিতে রুপান্তর করতে পারেন।
☆ Photo filters: ব্ল্যাক অ্যান্ড হোয়াইট, নিওন গ্লো, ওয়েল পেইন্টিং এবং অন্যান্য অনেকগুলি ফটো ফিল্টারগুলির সাথে আপনার ছবি ইডিট করতে পারেন।
☆ Photo collages: এই অ্যাপসের মাধ্যমে collage ইডিট করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *